ফেসবুকে, অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এবং সরাসরি চেম্বারে এসে অধিকাংশ পুরুষ রোগীরা বিশেষত, সদ্য বিবাহিত যুবকেরা যে রোগের চিকিৎসার জন্য শরণাপন্ন হন সেটি হচ্ছে নানান ধরণের যৌন সমস্যা। দিন দিন এই রোগীর হার জ্যামিতিক হারে বাড়ছে। যা অনেক চিকিৎসকের জন্য সুখবর হলেও আমার নিকট সংগত কারণেই আতংকের। আতংকের কারণ – যুবকদের বিভ্রান্তি ও দিশেহারা অবস্থা।

তথাকথিত ডাক্তার-কবিরাজদের জন্য এজাতীয় রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়াটা সুখবরই (!) বটে। কিন্তু একটি দেশের যুবকদের এহেন সমস্যা তথা দুর্দশা নিতান্তই হতাশাজনক। ইদানীং দেশের আনাচে কানাচে ব্যাঙের ছাতার মত গড়ে উঠেছে বিভিন্ন চমকপ্রদ চিকিৎসা প্রতিষ্ঠান – যাদের কাজই এ জাতীয় রোগীকে ব্লাকমেইল করা, প্রতারিত করা এবং বিপুল অর্থ উপার্জন করা। আজকাল সর্বত্রই দেখি চমকপ্রদ সব চিকিৎসার বিজ্ঞাপন, পোষ্টার- সাইনবোর্ড। আকর্ষণীয় বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে শারীরিক-মানসিকভাবে আক্রান্ত রোগীকে তারা প্রতিনিয়ত অভিনব কায়দায় প্রতারিত করে যাচ্ছেন। বিশেষ করে যৌন সমস্যা নিয়ে আসা রোগীদের। অনেক পোষ্টারে দেখা যায় যে ঐ তথাকথিত ডাক্তার-কবিরাজেরা ২৪-৭২ ঘন্টায় পূর্ণ আরোগ্যের ১০০% গ্যারান্টি দিচ্ছেন। বিফলে মূল্য ফেরত, জীবনের শেষ চিকিৎসা ইত্যাদি চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দেয়া হচ্ছে অসহায় রোগীদের প্রতি। তারা রোগীদের মনেও একটি আতংকজনক অবস্থা তৈরী করছেন, তাদের মনোবল ভেংগে দিয়ে মনোস্তাত্ত্বিক সমস্যার সৃষ্টি করছেন। রোগীদের ফেলে দিচ্ছেন মহা টেনশনে। অনেকেই এ সমস্যা নিয়ে অতি বিচলিত। কোথায় গেলে সুচিকিৎসা পাওয়া যাবে তা কেউ বুঝতে পারছেন না।

এক অর্থে এ জাতীয় যৌন সমস্যা কোন সমস্যাই নয়। কারণ, যৌনরোগ বলতে আমরা বড়দাগে গণোরিয়া, সিফিলিস, এইচআইভি এইডস ইত্যাদি বুঝি। কিন্তু আজ যাদের কথা বলছি তাদের সমস্যা ভিন্ন। আজকের যুবকেরা অধিকাংশ ক্ষেত্রে বিশৃংখল জীবন যাপন ও অবাধ মেলামেশা করায় এবং নিজের হাতে নিজের পায়ে কুড়াল মারায় কিছু যৌন সমস্যায় আক্রান্ত হচ্ছেন। দ্রুত বীর্যপাত, ধ্বজভংগ ইত্যাদির কারণে অনেকের সংসার ভেংগে যাচ্ছে। অথচ অতি সহজেই এ সমস্যাকে প্রতিরোধ করা যায়। এ সমস্যা রোগীর নিজের সৃষ্ট। যখন তারা ভুল বুঝতে পারে তখন অনেক বিলম্ব হয়ে যায়। ফলে যুবকেরা হতাশায় ভুগছে আর ভাবছে এ রোগের কোন চিকিৎসাই নাই। কিন্তু এখনও যদি তারা জীবনটাকে সুন্দর করে সাজাতে পারে আর সৃষ্ট সমস্যার কারণে ভাল ও অভিজ্ঞ হোমিওপ্যাথের শরণাপন্ন হতে পারে ইনশাল্লাহ তারা একটি সুখী-সমৃদ্ধ দাম্পত্য সম্পর্ক তৈরী করতে পারবে।

মুল কথা হলো আমাদের দেশের যুবুকদের বেশীর ভাগই এ সমস্যায় ভুগছে। বিশৃংখল জীবনযাপন না করলে এ জাতীয় যৌন সমস্যা দেখা দেয়ার কোন কারণই নেই। মূলত: যেসব কারণে সমস্যার সৃষ্টি হয় সেগুলো হলো-

1. অশ্লীল পর্ণোগ্রাফি যা আধুনিক তথ্য প্রযুক্তির বদৌলতে আজ সবার নিকট উন্মুক্ত। এটি অবৈধ যৌনতাকে উসকে দিচ্ছে। যুবকদের নৈতিক স্খলন ঘটানোর জন্য এটি মুলত একটি পরিকল্পিত আগ্রাসন,
2. উপরোক্ত কারণে যুবেকরা নেশাগ্রস্থ হচ্ছেন, অতিরিক্ত হস্তমৈথুন, বিবাহ বহির্ভুত অবাধ যৌন সম্পর্কে লিপ্ত হচ্ছেন,
3. যুবকদের বেকারত্ব, দু:চিন্তা, হতাশা, ভীতি ইত্যাদি কারণে সময়মত বিবাহ না করা গুরুত্বপূর্ণ কারণ,
4. যৌনশক্তি বাড়ানোর নামে তীব্র উত্তেজনা সৃষ্টিকারী মেডিসিন সেবন করা,
5. অতিরিক্ত ধুমপান করা, নানা জাতীয় নেশাদ্রব্য গ্রহণ করা,
6. স্বামী-স্ত্রীর মাঝে বহুদিন সম্পর্ক ছিন্ন থাকা, বিশেষত স্বামী বিদেশে অবস্থান করার কারণে,
7. দীর্ঘদিন যাবত কঠিন রোগ যেমন আমাশয় ও কঠিন গ্যাস্ট্রিক রোগে ভোগা এবং বহুদিন ধরে ভুল চিকিৎসা অব্যাহত থাকা,
8. অতিরিক্ত যৌন চিন্তা করা, যার ফলে অতিরিক্ত স্বপ্নদোষ হওয়া,
9. ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হওয়া, শারীরিক ওজন অতিরিক্ত বৃদ্ধি পাওয়া,
10. কায়িক পরিশ্রম কম করা, সুস্থ বিনোদনের ব্যবস্থা না থাকা,
11. সঠিক বয়সে বিবাহ না করা যার পিছনে পরিবারের উদাসীনতাও দায়ী,
12. ধর্মীয় অনুশাসন না মেনে চলা ইত্যাদি।

যুবকদের নিকট থেকে আমি যে জাতীয় সমস্যার জন্য চিকিৎসা সেবার অনুরোধ পাই তার ৮০% দ্রুত বীর্যপাত এবং ক্ষেত্র বিশেষে সহবাসে সম্পূর্ণ অক্ষমতা। যে কারণেই থেকেই ধ্বজভংগ (impotent) হোক না কেন হোমিওপ্যাথিই পারে তার সমাধান দিতে। আমরা রোগ নয়; রোগীর চিকিৎসা করি। সেদিক থেকে রোগীর লক্ষণভেদে যেকোন ওষুধই নির্বাচিত হতে পারে। রোগীর লক্ষণের সাথে সদৃশ ওষুধ দ্বারা ও হোমিওপ্যাথিক নিয়মনীতি অনুযায়ী চিকিৎসা করলে আল্লাহর রহমতে পূর্ণ আরোগ্য সম্ভব। তবে স্থায়ী আরোগ্যের জন্য জীবনযাত্রায় পরিবর্তন আবশ্যক। যে কারণে সমস্যার সৃষ্টি তা অবশ্যই বর্জনীয়। তবে এ সমস্যা হতে মুক্তি পাবার জন্য অবশ্যই একজন রেজিষ্টার্ড, অভিজ্ঞ ও সৎ হোমিওপ্যাথের শরণাপন্ন হতে হবে। তিনি আপনার সকল সমস্যা শুনেই উপযুক্ত চিকিৎসা ও কাউন্সেলিং করবেন। ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী চিকিৎসা সমাপ্ত করাটাও জরুরী। চিকিৎসার পাশাপাশি নিয়মিত পুষ্টিকর খাবার গ্রহণ, শারীরিক পরিশ্রম বা শরীর চর্চা করা, পর্যাপ্ত ঘুমের প্রয়োজন। অবশ্যই ধর্মীয় অনুশাসন মেনে চলতে হবে।

সবশেষে, একটি কথা না বললেই নয়, যে সমস্ত যুবক ভাইয়েরা বাজারে প্রচলিত পার্শ্বপ্রতিক্রাযুক্ত যৌনক্ষমতা বর্ধক মেডিসিন সেবন করছেন তারা নিশ্চিতভাবে মারাত্মক ক্ষতির মধ্যে পড়ছেন। যতই গ্যারান্টি দেয়া হোক না কেন বাস্তবতা ভিন্ন। এসব মেডিসিন সাময়িক উত্তেজনা সৃষ্টি করলেও ভবিষ্যতে স্থায়ী ক্ষতি ব্যতীত কোন উপকার করেনা। রোগীকে ফেলে দেয় মারাত্মক হুমকীর মধ্যে। তাই সবাইকে সচেতন হতে হবে।

8 Responses

    1. Thanks for writing us. Please take appointment and share all your info to get proper treatment

  1. আমি এই সব রুগে ভুগতেছি আমি একন কি ভাবে ভালো চিকিৎসা পাবো

    1. Sorry for late reply. We cannot provide treatment without knowing your overall condition. Please visit the link for more info. drbenojir.com/contact/

  2. Sir I am suffering from nightpressure from the time of adolescence even I have got married for 8 years but still I am suffering from that problem.Now my life is in the line of ruin.what can you do for me?

    1. If you are still suffering from this problem please come to my chamber. For more info please visit: drbenojir.com/contact/

  3. I need proper solution for my disease.Its rise more than 5 years,I can not share this problem with any people.If possible please send your phone number,i will talk you and tell my details problem.

    1. Sorry for late reply. For treatment you need to come directly to my chamber. Please call me to fix an appointment. 01733797252. For more details please visit: drbenojir.com/contact/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *